পাবদা মাছের রেসিপি। pabda macher recipe in bangla

অনুষ্ঠান বাড়িতে সরষে বাটা দিয়ে পাবদা মাছের ঝাল টা হয় তারই রেসিপি। খুব সিম্পল রেসিপি বা কিছু প্রসেসের টাইমিং আছে যেগুলো ফলো করলেই টেস্টটা দ্বিগুণ হয়ে যায়।

Pabda Macher Jhal Shersedie

৬ টুকরো পাবদা মাছ / 6 ed Pices of Pabda Fish

১ চা চামচ নুন / 1 tsp Salt

১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো / 1 tsp Turmeric Powder

চা চামচ সরষের তেল / 2 tsp Mustard Oil

৩ চা চামচ কালো সরষে / 3 tsp Black Mustard

২ চা চামচ হলুদ সরষে / 2 tsp Yellow Mustard

৭-৮ টি কাচা লঙ্কা / 7-8 Green Chillies

২ টি মাঝারি মাপের টমেটো / 2 Medium Size Tomato

২ চা চামচ কুচোন আদা / 2 tsp Chopped Ginger

৩০ মিলি সরষের তেল / 30ml Mustard Oil

১/২ চা চামচ কালো জিরে / 1/2 tsp Black Onion Seeds

১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো / 1 tsp Turmeric Powder

১/২ চা চামচ কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো / 1/2 tsp Kashmiri Chilli Powder

দিয়ে দিন টমেটো বাটা / Add Tomato Paste

স্বাদমত নুন / Salt to taste

দিয়ে দিন সরষে বাটা / Add Mustard Paste

জল / Water

১/২ চা চামচ চিনি / 1/2 tsp Sugar

ধনেপাতা / Corriander Leaf

কাচা লঙ্কা / Green Chillies

এটা একদম ক্লিনার প্রসেস থাকে তাই আপনাদের আর ধুয়ে নিতে হবে না ডাইরেক্টলি এটা আপনারা ব্যবহার করতে পারেন এবার এই পাবদা মাছগুলিকে আমাদের ম্যারিনেট করে নিতে হবে আর তার জন্য প্রথমে দিয়ে দিতে হবে পরিমাণ মতো নুন সাথে একটু হলুদ আর সামান্য একটু সরষের তেল।

চিকেন ভুনা রেসিপি । chicken bhuna masala in bangla

এ বারে নুন আর হলুদ থেকে আপনাদের মাছের দু পিঠই ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে। ভালো করে মাখানো হয়ে গেলে এটিকে আপনাদের রেখে দিতে হবে। মিনিমাম 10 মিনিটের জন্য এ খুব সিম্পল পেস্ট আপনাদের বানিয়ে নিতে হবে।

আর তার জন্য লাগবে তিন চা চামচ কালো সর্ষে। এছাড়া সাথে লাগবে দুই চা চামচ। সাদা সরষে এক চা চামচ পোস্ত আর ঝালের জন্য কাঁচালঙ্কা। তারপর পরিমাণ মতো জল দিয়ে রেখে ভিজিয়ে রাখুন। মিনিমাম 10-15 মিনিট ভিজিয়ে রাখার পরে এটাকে আপনারা ভালো করে পেস্ট করে নেবেন। আচ্ছা এখানে ছোট্ট টিপস যদি আপনারা অনেক কোনটিতে করতে চান বা একটু বেশি পরিমাণে করতে চান সেক্ষেত্রে আপনার এখানে।

কাজেও ব্যবহার করতে পারে। কারণ অনেক সময়ে বেশি কোনটিতে করলে পোস্তটা ব্যবহার করা সম্ভব হয় না। তাই পোস্তর পরিবর্তে আপনারা কাজে ব্যবহার করতে পারেন। আর এই রেসিপির জন্য টমেটো খুব বেশি লাগে না। আমি এখানে ছোট মাছের জন্য মিডিয়াম সাইজের টমেটো কে এ ভাবে কেটে নিয়ে ভাল করে পেস্ট করে নেবো আর সাথে একটু আলোচনা করে নেব এটা আমরা পরে ব্যবহার করব।

এ আমি এখানে পাত্র নিয়ে তাতে দিয়ে দিচ্ছি। সর্ষের তেল মাছগুলো ভেজে নেওয়ার জন্য। আচ্ছা এখানে বলে রাখি মাছটা আপনাদের অতি অবশ্যই তেলটা একদম গরম হয়ে যাওয়ার পরে দিয়ে দিতে হবে। তা না হলে পাত্রের গায়ে মাছটা লেগে যাবে। আর ভাজা একদমই ভাল হবে না।

আর তেলটা গরম হয়েছে কিনা সেটা চেক করার জন্য এভাবে একটু লবণ দিয়ে দিতে পারেন যদি লবণটা দেওয়ার সাথে সাথে এরকম উপরে উঠে আসে তাহলে বুঝবেন এটা একদম পারফেক্ট গরম হয়ে গেছে। এবার আমি একে একে মাছগুলো এখানে দিয়ে দিচ্ছি আর ভাজার সময় গ্যাসের ফ্রেমটা অতি অবশ্যই লোটো মিডিয়াম রাখবেন খুব যে বেশি কড়া করে ভাজতে হবে তা নয়৷

মোটামুটি একটু ভাজা হয়ে গেলে আপনাদের মাছটাকে ভালো করে উল্টে নিতে হবে। আর উলটে নেওয়ার সময় যদি এরকম আর এখন তো ব্যবহার করেন তাহলে দেখবেন এটা আপনারা খুব ইজিলি করে নিতে পারবেন। বাবা মা যেহেতু খুবই নরম টিকেট হয় তাই এই স্টেপগুলো আপনারা অবশ্যই ফলো করবেন। আর মাছগুলো ভাজা হয়ে গেলে পাত্রে তুলে রাখছি যে বাকি মাছ গুলো আছে সেগুলো ভেজে নিচ্ছি।

তাহলে আমাদের সব ক টা মাছ ভাল করে ভাজা হয়ে গেল। এবার এই মাছ ভাজা তেলে আমাদের দিতে হবে। হাফ চা চামচ কালোজিরে। আর যে আদাটা কুচিয়ে রেখেছিলাম সেটা দু চামচ। আচ্ছা এখানে ছোট্ট টিপস গ্রামের কাছে একদম পারফেক্টলি আনার জন্য হলুদ আর লংকাগুঁড়ো টা আপনাদের এলেই দিয়ে দিতে হবে আর অবশ্যই সময় গ্যাসের ফ্লেম টা একদম রাখবেন আর দেওয়ার সাথে সাথে একবার মেশিনে যে টমেটো পেস্ট করেছিলাম সেটা এখানে দিয়ে দিতে হবে।

আর টমেটো দেওয়ার পরে অতি অবশ্যই এখানে নুনটা দিতে ভুলবেন না। আচ্ছা এখানে বলে রাখি টমেটোটা আপনাদের খুব ভাল করে করতে হবে। যদি টমেটোর কাঁচা গন্ধটা থেকে যায় সে ক্ষেত্রে টেস্টটা একদমই ভালো আসে না। আর টমেটোটা যে পারফেক্ট লিক হয়ে গেছে সেটা কীভাবে বুঝবেন যখন দেখবেন টমেটো এরকম তেলের মধ্যে নানা হয়ে আসছে তাহলে বুঝবেন এটা একদম পারফেক্ট লিক হয়ে গেছে। আর এই যে কাঁচা গন্ধটা আছে সেটাও চলে গেছে।

এ ফাইনালে যে সরষে পোস্ত আমরা বেছে নিয়েছিলাম সেটা এখানে দিয়ে দিচ্ছি। আর পেস্তা দেওয়ার পরে সেই প্রেমটাকে একদম লো করে খুব ভালো করে এটাকে আপনাদের মিশিয়ে নিতে হবে। মোটামুটি 3-4 মিনিট লাগবে। এটা করে নেওয়ার জন্য আর টেস্টটা ব্যালেন্স করার জন্য এখানে অবশ্যই দেবেন৷ সামান্য একটু চিনি।

তার পর যখনই দেখবেন এইভাবে তেলটা ছেড়ে দিয়েছে তখন এখানে দিতে হবে পরিমাণ মতো জল। আর জল দেওয়ার পরে ওয়েট করবেন। যতক্ষণ এটা ভালো করে ফুটে আসছে। আরেকবার ফুটে গেলে আমরা যে মাছগুলো ভেজে রেখেছিলাম সেটা এখানে দিয়ে দেবো।

মাছ দেওয়ার পরে আমাদের ফুটিয়ে নিতে হবে। মিনিমাম 5-7 মিনিট। যে হেতু মাছগুলো খুবই ডেলিকেট, তাই আমি এখানে আর খুনতির ব্যবহার করছি না। যে এই ভাবে এটাকে মিশিয়ে নিচ্ছি। আর 5-7 মিনিট পরেই দেখবেন তেলটা একদম খুব ভালো করে ছেড়ে দেবে। আর গ্রে থেকে খুব সুন্দর গন্ধ বেরোবে আর ফাইনালে ফিনিশ করতে হবে সামান্য ধনে পাতা আর কাঁচা লঙ্কা দিয়ে।

নইলে নিশ্চয়ই দেখতে পেলেন এই রেসিপিটা করা কতটা সহজ। আশা করি এই রেসিপিটা আপনাদের নিশ্চয়ই ভালো লেগেছে৷ আর ভালো লাগল প্রতিবারের মতো আমাকে কিন্তু কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

1 thought on “পাবদা মাছের রেসিপি। pabda macher recipe in bangla”

Leave a comment