ঢেঁড়স রেসিপি পেয়াজ রসুন ছাড়া । Niramish recipe in Bengali

যাঁরা ঢেঁড়শ খেতে পছন্দ করেন, তাদের এই রেসিপিটা অবশ্যই ভালো লাগবে। আর যারা খেতে পছন্দ করেন না, তাঁদের এক বড় রিকোয়েস্ট করব। এইভাবে বানিয়ে দেখার রেসিপিটা সম্পূর্ণ নিরামিষ বাটি টেস্টটা কিন্তু দারুণ সুন্দর আসে।

Chicken Bhuna Masala Ingredient

৩০০ গ্রাম ঢেঁড়স / 300g Lady Finger

২ চা চামচ পোস্ত দানা / 2 tsp Poppy seeds

২ চা চামচ কালো সরষে / 2 tsp Balck Mustard seeds

৪-৫ টি কাঁচা লঙ্কা / 4-5 ea Green Chillies

জল / Water

স্বাদমত নুন / Salt to Taste

১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো / 1 tsp Turmeric Powder

১/২ চা চামচ কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো / 1/2 tsp Kashmiri Chilli Powder

১/২ চা চামচ মৌরি / 1/2 tsp Fennel Seeds

২ চা চামচ বেসন / 2 tsp Gram Flour

১০০ মিলি সরষের তেল / 100 ml Mustard Oil

১/২ চা চামচ কালো জিরে / 1/2 tsp Black Onion Seeds

১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো / 1/2 tsp Turmeric Powder

১/২ চা চামচ কাশ্মীরি লাল লঙ্কার গুঁড়ো / 1/2 tsp Kashmiri Red Chilli Powder

৫-৬ টি কাজু বাদাম / 5-6 ea Whole Kazu

২ টি মাঝারি মাপের টমেটো পাতলা করে কাটা / 2 Medium Size Tomato Slice

স্বাদমত নুন / Salt to Taste

জল / Water

১ চা চামচ চিনি / 1 tsp Sugar

মাঝখান থেকে কাটা কাঁচা লঙ্কা / Slite Green Chillies

কুচোন ধনেপাতা / Chopped Coriander

আজকে আমাদের রেসিপি নিরামিষ ভেন্ডি তাহলে নিরামিষ ভেন্ডি বা নিরামিষ ঢেঁড়স বানানোর জন্য আমি এখানে তিনশ গ্রাম ঢেঁড়স নিয়েছি আর ঢেঁড়স কাটা খুবই সিম্পল৷

যে সামনের অংশটা আর পিছনের অংশটা বাদ দিয়ে দিতে হবে শুধু এই ভাবেই আপনাদের কাটতে হবে তা কিন্তু নয়। চাইলে আপনাকে একটু ছোট করে কেটে নিতে পারেন৷

আর অতি অবশ্যই চেষ্টা করবেন একটু কুচিয়ে নেওয়া এবং ঢ্যাঁড়সগুলো আমি ম্যারিনেট করে নেবো আর তার আগে পেস্ট আপনাদের বানিয়ে দেখাচ্ছি তার জন্য বাটিতে নিয়ে নিচ্ছি দুই চা চামচ পোস্ত সাথে দু চা চামচ গোটা সরষে ঝাল এর জন্য কাঁচা লংকা তারপর জল দিয়ে ভালো করে পেস্ট করে নিন আর পেশ করার আগে যদি আধঘণ্টা মত ভিজিয়ে রাখেন তাহলে আরও ভালো হয়৷

অনেক সময় মিষ্টিতে সরষে বাটা দেখবেনবেশ অনেকটাই তেতো হয়ে যায়। তাই সেটা বের করার জন্য দিয়ে দেবেন। পাঁচ থেকে ছয় টা গোটা কাজু আর এ রকম অনেক টিপস শেয়ার করেছি।

এবার ঢেঁড়সগুলো কেটে দেখেছিলাম সেগুলোকে ম্যারিনেট করে নেবো আর তার আগে অতি অবশ্যই মানুষের মধ্যে এভাবে একটু জল ছিটিয়ে নেবেন। তাহলে ম্যারিনেশনের সাথে খুব ভালোভাবে করতে হবে। আর ম্যারিনেট করার জন্য দিয়ে দিন। স্বাদ মতো নুন। সাথে হাফ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো। হাফ চা চামচ কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো।

সামান্য একটু মৌরি আরেকটু ক্রিস্প করার জন্য দুই চা চামচ বেসন ব্যস, এই সব কিছুকে একবার ভাল করে মিশিয়ে নিন।এবার ঢেঁড়সগুলো ফ্রাই করার জন্য আমি কড়াইতে নিয়ে নিচ্ছি। সরষের তেল আর তেলটা গরম হয়ে গেলে আমি এখানে ঢ্যাঁড়সগুলো দিয়ে দিচ্ছি।

আর তারপরে গ্যাসের দাম থাকে মিডিয়াম রেখে আপনাদের ফ্রাই করে নিতে হবে। দেখবেন বেসনের পেস্ট ক্রিস্পি হয়ে গেছে তাহলে বুঝবেন কেন সেটা ভেতর থেকে ভাল ভাবে বুক হয়ে গেছে। আর ভাজার সময় চেষ্টা করবেন যেন এ রকম সবুজ কালার এর থাকে। কারণ খুব বেশি ফ্রাই করলেই এটা কিন্তু ডিস্কের হয়ে যাবে।

তাই এই পয়েন্টগুলো নিশ্চয়ই মাথায় রাখবেন। প্রথম ম্যাচটা ভাজা হয়ে গেলে আমি সেকেন্ড ম্যাচটা ঠিক একইভাবে ভিজে নিচ্ছি। আর এই রেসিপিতে বেসন দেওয়া কারণ আছে৷ প্রথমত আগেই বললাম যেটা মানুষটাকে একটু ক্রিস্পি করার জন্য, দ্বিতীয়ত সর্ষের তেল বেসন তাঁকে ফ্রাই করলে দিল্লির গন্ধটা খুবই সুন্দর হয়ে যায়।

তার ফ্লেভারটা নিরামিষ রান্না আলাদা মাত্রা এনে দেয়। আশা করি এই ছোট ছোট টিপস গুলো আপনাদের নিশ্চয়ই কাজে লাগবে। এবার সব মানুষগুলো ভাজা হয়ে গেলে আমি একই তেলে দিয়ে দেবো। হাফ চা চামচ কালোজিরে রঙের জন্য হাফ চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো আর হাফ চা চামচ কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো এবার এর সাথে দিয়ে দিতে হবে টমেটো টমেটো টা আপনাদের খুব বেশিক্ষণ করতে হবে না।

জাস্ট কাঁচা গন্ধটা চলে গেলেই হবে আর যাতে তা তাড়াতাড়ি চলে যায় সেইজন্য দিয়ে দেবেন স্বাদমতো নুন এরপর অ্যাড করতে হবে। আমরা যে সর্ষের পেস্ট করে রেখেছিলাম, সেটা দেওয়ার পরে তাঁকে একবার ভালো করে মিশিয়ে নেবেন। এবার 2-3 মিনিট। এভাবে আপনাদেরকে রান্না করে নিতে হবে।

প্রসেসটা ফাঁস করার জন্য গ্যাসের প্রেমটাকে একদম লো করে আমি ঢাকা দিয়ে করে নিচ্ছি। ঢাকা খোলার পরেই বুঝতে পারবেন সর্ষে। তাতে খুব সুন্দর গন্ধ বেরোবে আর টমেটোগুলো সময় একদম পারফেক্ট লিক হয়ে যাবে। ঠিক এই গ্রেভিটা বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য দিতে হবে পরিমাণ মতো জল।

আচ্ছা অবশ্য এখানে স্বাদমতো একটু চিনি দিতে ভুলবেন না। এর পরেই যাতে না ছড়ায় সেজন্য ঢাকা দিয়ে রান্না করে নিচ্ছি। মিনিমাম 10-15 মিনিট। আর 10-15 মিনিট পরে খুললেই দেখবেন ছবিটির কালার টা খুব সুন্দর চলে আসবে। আর জলটা কমে গিয়ে একদম পারফেক্ট চলে আসবে। এবার এই স্টেজে আপনাদের করে দিতে হবে ভেজে রাখা ঢ্যাঁড়স টাকা ঢেঁড়শ দেওয়ার পরে আপনাদের খুব বেশিক্ষণ খুব করতে হবে না।

এক থেকে দেড় মিনিট একদম স্লো ফ্রেমে তাঁকে করলেই হবে। এটাকে ফিনিশ করার জন্য আপনাদের দিয়ে দিতে হবে। কাঁচালঙ্কা আর কুচোনো ধনেপাতা ব্যাস তাহলেই তৈরি হয়ে গেল নিরামিষ সারস। আশা করি এই রেসিপিটা আপনাদের নিশ্চয়ই পছন্দ হবে। আর ভালো লাগে অতি অবশ্যই আমাকে প্রতিবারের মতো কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না।

গরম গরম ভাতের সাথে রকম গান চলে আসা করি আর কিছু লাগবে না। তাই একবার রেসিপিটা ট্রাই করার অনুরোধ রইলো ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

Leave a comment