আলু চিলা রেসিপি। Aloo Chilla recipe

মাত্র আলু ব্যবহার করে সকালে বা সন্ধ্যায় এ রকম সুস্বাদু জলখাবার বানিয়ে নিন। যেটা বাচ্চা থেকে বড় সবাই পছন্দ করবে। এছাড়াও এর সাথে আমি সহজ আলো যে রেসিপিও করে দেখাব যেটা এটার সাথে আপনারা সলভ করতে পারবেন।

Aloo Chilla

২ টি সেদ্ধ আলু / 2 ea Boiled Potato

১/২ গ্রেটকরা গাজর / 1/2 Carrot Great

২ টি পিয়াঁজ কুচি / 2 ea Onion Chopped

১ টি মাঝারি মাপের ক্যাপসিকাম / 1 ed Medium Size Capcicum

১ টি ছোট মাপের আদা / 1 ea Small Size Ginger

৬-৭ টি কাচা লঙ্কা কুচি / 6-7 ea Green Chilli Chopped

১/২ চা চামচ গোটা জিরে / 1/2 tsp Whole Cumin

১/২ চা চামচ মৌরি / 1/2 tsp Fenne

স্বাদমত নুন / Salt to Taste

১ চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো / 1 tsp Black Pepper Powder

কুচোন ধনেপাতা / Chopped Coriander

৫০০ গ্রাম ময়দা/ 500g Flour

জল / Waterfofa/Sugar

২ চা চামচ তেল / 2 tsp Oil

লাগিয়ে নিন তেল / Apply Oil Aloo Jeera Recipe

৪ টি সেদ্ধ আলু / 4 ea Boiled Potato

চা চামচ তেল / 2 tsp Oil

১ চা চামচ ঘি / 1 tsp Ghee

১.৫ চা চামচ গোটা জিরে / 1.5 tsp Whole Cumin

১ চা চামচ কুচোন কাচা লঙ্কা / 1 tsp Chopped Green Chillies

১/৩ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো / 1/3 tsp Turmeric Powder

স্বাদমত নুন / Salt to taste

কুচোন ধনেপাতা / Chopped Coriander

লেবুর রস / Lemon Juice

আর আজকে আমাদের রেসিপি আলুর জিলা। তাহলে এটা বানানোর জন্য আমি আলু আর তার সাথে ভেজিটেবল নিয়ে নিয়েছি আমরা অবশ্যই আমি আগে থেকেই ভালো করে রেখেছি এবং সেটাকে আমি কিভাবে ভাল করে গ্রেট করে নেব দুটোই ভালো করে গ্রেট করা হয়ে গেলে এখানে আমি গ্রেট করে নিচ্ছি গাজর এরকম বড়জোর হলে হাফ জড়িয়ে নাও।

কিছু ভেজিটেবল আমাদের জব করে নিতে হবে। প্রথমে আমি এখানে পেঁয়াজ যোগ করে নিচ্ছি মন সাথে ক্যাপসিকামকে ও ছোট ছোট করে চোখ করে নেবো। আমি এখানে যে বল দিচ্ছি আপনাদের যদি মনে হয় অন্য কোনও ভেজিটেবল দেবেন আপনারা চাইলে সেটাও দিয়ে দিতে পারেন যেগুলো খুবই ইয়ে বলেন আমি সেগুলি দিয়ে দিচ্ছি যদি আপনারা একটু কন্টিনেন্টাল স্টাইলে খেতে চান তাহলে কোন অলিম্পিক্স বা যোগিনী এগুলো দিয়ে দিতে পারেন।

এবার ক্যাপসিকামের পরে আমি একটু আদা ও জব করে দিয়ে দিচ্ছি সাথে ঝালের জন্য দিয়ে দিয়েছি কাঁচা লঙ্কা ও এবার এই ভেজিটেবল গুলো দিয়ে দেওয়ার পরে লাগবে হাফ চা চামচ গোটা জিরে সাথে হাফ। চা চামচ মৌরি এরপর অবশ্যই। স্বাদমতো নুন আর যদি গোল মরিচের ঝাল পছন্দ করেন তাহলে সেটাও এখানে দিয়ে দেবেন।

এরপর একটু বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য লাগছে জন্য ধনেপাতা। আর তারপর বাইন্ডিংয়ের জন্য লাগবে দুই কাপ ময়দা। এই সব ড্রেনগুলোতে আপনাদের ভালো করে একবার মিশিয়ে নিতে হবে মেশানো হয়ে গেলে এতে দিয়ে দিন পরিমাণ মতো জল। এবার হুইস্কির মাধ্যমে টাকে ভালো করে মিশিয়ে নিন আচ্ছা এখানে আপনারা একটু সামান্য চিনি দিতে ভুলবেন না সাথে সামান্য একটু বেকিং পাউডার দেবেন ক্লাবে হওয়ার জন্য যদিও অপশনাল চাইলে আপনারা দিতেও পারেন চাইলে নাও দিতে পারেন। আর সব শেষে আমাদের দিতে হবে দু চা চামচ তেল আর ফাইনালে একবার মেশিনে আমাদের রেখে দিতে হবে 5-10 মিনিট মতো আর পাঁচ থেকে 10 মিনিট পরে এটিকে বানিয়ে নেওয়ার জন্য নিয়ে নিচ্ছি নন স্টিক প্যান যেটাতেই সামান্য একটু তেল ব্রাশ করে নিচ্ছি।

এর পরে আমরা মিক্সারটা বানিয়েছিলাম সেখানে দিয়ে দেব খুবই সিম্পল প্রসেস হাতে 20-25 মিনিট সময় থাকলে আপনারা ইজি বানিয়ে নিতে পারবেন মানুষটা কিভাবে স্প্রে করে দেওয়ার পরে 3-4 মিনিট ঢাকা দিয়ে ভাল করে কোট করে নিন অতি অবশ্যই আছে প্রেমটা আপনার ঠিক এ রকম ছিল রাখবেন আচ্ছা এখানে আরও ছোট্ট টিপস যখনই দেখবেন।

এই উপরের কভারটা এ বেশ অনেকটাই জল জমে আছে তাহলে বুঝবেন এটা একদম পারফেক্ট লিক হয়ে গেছে নিচের দিক থেকে তাই এবার ঢাকনা খুলে এটাকে পাল্টে নিতে হবে নীচে দেখতে পাচ্ছেন এটা কতটা সোজা বানানো আর কত তাড়াতাড়ি এটা মানিয়ে নেওয়া যায়।আর চাইলেই আপনারা বাচ্চাদের জন্য স্কুলের টিফিন ও দিয়ে দিতে পারেন এটা যেমন মুখরোচক তেমনই কিন্তু হেলদিও এই একই প্রসেস আমি আরও কয়েকটা বানিয়ে নিচ্ছি আর এখানে তাহলে দেখতে পেলেন আমার এখানে শিলাগুলো বানানো হয়ে গেল এটা আপনারা শুধু টমেটো কেচাপ দিয়ে ইডলি খেতে পারবেন।

আর যদি চান একটু অন্য ভাবে খাবেন তাহলে এর সাথে আমি আলো যে রেসিপিও করে দেখাচ্ছি তার জন্য আলুগুলোকে আমি এভাবে ছোট ছোট। করে কেটে নিচ্ছি টোটাল সেদ্ধ করা আলু আমি এখানে নিয়েছি এবার কড়াইতে দিয়ে দিন সামান্য একটু তেল আর চাইলেই তার সাথে আপনারা বাটার বা ঘি দিতে পারেন আমি এখানে একটু ঘি দিয়ে দিলাম।

এবার লাগবে দেড় চা চামচ গোটা জিরে সাথে ঝোলের জন্য লাগবে কাঁচা লঙ্কা রঙের জন্য সামান্য একটু হলুদ তার পরেই সব কিছুকে একবার ভালো করে মিশিয়ে নিন।

আর অতি অবশ্যই এই সময় গ্যাসের ফিল্মটা একদমই ভাল রাখবেন আর যখনই দেখবেন যে থেকে খুব সুন্দর গন্ধ বেরোচ্ছে তখন সেখানে দিতে হবে আমাদের কেটে রাখা আলুগুলো এর পর এখানে স্বাদমতো নুন দিয়ে একবার এটাকে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

আপনার যে হোটেলে বা রেস্টুরেন্টে আলজিরা অর্ডার করে থাকেন গ্যারান্টি দিয়ে বলছি এই টেস্ট তার থেকে কোনও অংশে কম হবে না সব শেষে ফিনিশ করুন ধনেপাতা আর লেবুর রস দিয়ে আর এরপর পরিবেশন করুন।

গরম গরম আলুর ছিলা আর সাথে রকম কালো জিরে আশা করি এই সম্পূর্ণ রেসিপিটা আপনাদের নিশ্চয়ই ভালো লেগেছে আর ভালো লাগল প্রতিবারের মতো আমাকে কিন্তু কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না একবার হল রেসিপিটা ট্রাই করার অনুরোধ রইলো। ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

Leave a comment